আজ মঙ্গলবার , ৯ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটে যথাযোগ্য মর্যাদায় ৭ই মার্চ উদযাপন হালুয়াঘাটের মামুন বাফুফে’র ক্যাপ্টেন নির্বাচিত হওয়ায় সংবর্ধনা ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে পৃথক স্থানে ট্রেনে কাটা পড়ে ২জন নিহত এমপি’র পক্ষে হালুয়াঘাট ধান্য ব্যবসায়ী সমিতির কম্বল বিতরণ ধোবাউড়ায় ট্রাক-হোন্ডা সংঘর্ষে নিহত-২, চালক ও হেলপার আটক বাউফলে ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি হালুয়াঘাটে ঝরে পড়া শিশুরা পাবে শিক্ষার সুযোগ। আসছে শিক্ষক নিয়োগও হালুয়াঘাটে স্বামীর আত্নহত্যা দেখে স্ত্রীও বিষ খায়! দুজনেরই মৃত্যু হালুয়াঘাটে স্বামী-স্ত্রীর আত্নহত্যা রাহেলা হযরত মডেল স্কুলে প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধাঞ্জলি ভাষা শহীদদের প্রতি কংশ টিভির পরিবার ও গণমাধ্যম কর্মীদের শ্রদ্ধাঞ্জলী ফুটবল ফাইনাল টুর্নামেন্টে বিজয়ী মধুপুর একাদশ স্পোটিং ক্লাব ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ময়মনসিংহ জেলার শ্রেষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার ত্রিশালের মোস্তাফিজুর রহমান

গর্ভের সন্তান বিক্রি করে স্মার্টফোন কিনলেন মা!

প্রকাশিতঃ ৩:৪৮ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৮, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২০১ বার

অনলাইন ডেস্কঃ এমন মা হয়তো পৃথিবী খুব বিরল। যিনি সামান্য একটি স্মার্টফোনের জন্য নিজের গর্ভের সন্তানকে বিক্রি করতে পারেন। এমনটাই ঘটেছে নাইজেরিয়ায়। অভিযুক্ত মায়ের নাম মিরাকল জনসন (২৩)। স্থানীয় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তারের পর সন্তানকে বিক্রি করায় অনুতাপ প্রকাশ করেছেন মিরাকল জনসন।

জানা গেছে, ২ লাখ নাইজেরিয়ান মুদ্রা নাইরার বিনিময়ে শিশুসন্তানকে একটি অনাথ আশ্রমের কাছে বিক্রি করেন মা। পুলিশ সুপার জনসন কুকোমে এই ঘটনাকে গুরুতর অপরাধ বলে অভিহিত করেছেন।

এদিকে, জনসন দাবি করেছেন, সন্তানকে বিক্রি করার জন্য তাকে প্ররোচিত করা হয়। তার এক বন্ধু ওই অনাথ আশ্রমটি চালায়। ওই বন্ধু জানায়, সন্তানকে বিক্রি করে ওই টাকায় স্বামীর ব্যবসা শুরুর কাজে লাগাতে কিংবা নিজের জন্য দামী স্মার্টফোন কিনতে।

জনসন জানিয়েছেন, হতাশা থেকে তিনি সন্তানকে বিক্রি করেছেন। তার স্বামী কাজ করে না, স্ত্রী ও সন্তানদের ভরণ পোষণে ব্যর্থ। এমনকি তিনি স্মার্টফোনও কিনতে চাননি। কিন্তু জনসনের স্বামী জানান, তিনি জনসনকে সন্তান বিক্রি করতে বাধা দিয়েছিলেন। কিন্তু জনসন সে কথা শোনেনি।

Shares