আজ সোমবার , ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাচনে মোশারফ, ফরিদ, আশুরা বিজয়ী গরীবের আশার বাতিঘর হাজী মোশারফ হালুয়াঘাটে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি পুঁততে গিয়ে মৃত্যু-১, আহত-১ জাতীয় ভাবে”স্বপ্নজয়ী মা” নির্বাচিত হলেন জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জের অবিরণ নেছা ৬১০৮ ভোটের ব্যবধানে হামিদ বিজয়ী। শেখ রাসেল ও মনোয়ারা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হালুয়াঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনঃ প্রবীণে প্রবীণে লড়াই এম্বুলেন্সে করে মাদক পাচারকালে ২৪০ বোতল ভারতীয় মদসহ একজন আটক এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার

টাঙ্গাইলে যৌতুক না পেয়ে গৃহবধুকে পুড়িয়ে হত্যা

প্রকাশিতঃ ১:৪৬ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৪, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৪৩৭ বার

অনলাইন ডেস্কঃ টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে যৌতুক না পেয়ে শাপলা বেগম (২২) নামে এক গৃহবধুকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার শশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। ওই গৃহবধু উপজেলার সল্লা ইউনিয়নের নরদহী চরপাড়া গ্রামের রাব্বি ইসলামের স্ত্রী ও একই গ্রামের বেল্লাল হোসেনের মেয়ে।

এলাকাবাসী জানান, উপজেলার নরদহী গ্রামের রাব্বী ইসলামের বাড়িতে মঙ্গলবার রাত্র আনুমানিক ১টার দিকে চিৎকার শুনতে পান স্থানীয়রা। তারা ঘরের ভিতরে গিয়ে দেখেন আগুনে শরীরের অর্ধক অংশ পুরে গেছে শাপলার । এসময় তার স্বামী বাড়িতে ছিলেন না। শ্বশুর-শ্বাশুড়িও ছিলো অন্য ঘরে। পরে অজ্ঞান অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত  চিকিৎসক তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিক্যালে নেয়ার কথা বলেন।

পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে বুধবার রাতে চিকিংসাধীন অবস্থায় বার্ণ ইউনিটে তার মৃত্যু হয়।

এলাকাবাসী আরো জানান, আমরা যখন ঘরে ঢুকি তখন দেখি শুধু তার শরীরে আগুন, কিন্তু তার একটু পাশেই খাঁট ও পাশের আলনা ভর্তি কাপড়  রয়েছে। সেখানে কোন আগুন লাগেনি। যদি অন্য কিছুতে আগুন লাগতো তাহলে অবশ্যই খাঁট ও আলনাতে রাখা কাপড়ে আগুন লাগতো। শাপলাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে।

নিহতের মা মর্জিনা বেগম জানান, আমার মেয়েকে  প্রতিনিয়ত যৌতুকের জন্য নির্যাতন করা হতো। সে আমাকে এবং আমার ছেলের ফোনে ফোন দিয়ে সব বলতো। ঘটনার আগের দিন এনিয়ে দুজনের মধ্যে ঝগড়া হয়।  যৌতুক না পেয়েই আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। আমি হত্যাকারীর বিচার চাই।

এ বিষয়ে কালিহাতী থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অাগুনে পুরে মৃত্যুর বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Shares