আজ রবিবার , ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে পৃথক স্থানে ট্রেনে কাটা পড়ে ২জন নিহত এমপি’র পক্ষে হালুয়াঘাট ধান্য ব্যবসায়ী সমিতির কম্বল বিতরণ ধোবাউড়ায় ট্রাক-হোন্ডা সংঘর্ষে নিহত-২, চালক ও হেলপার আটক বাউফলে ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি হালুয়াঘাটে ঝরে পড়া শিশুরা পাবে শিক্ষার সুযোগ। আসছে শিক্ষক নিয়োগও হালুয়াঘাটে স্বামীর আত্নহত্যা দেখে স্ত্রীও বিষ খায়! দুজনেরই মৃত্যু হালুয়াঘাটে স্বামী-স্ত্রীর আত্নহত্যা রাহেলা হযরত মডেল স্কুলে প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধাঞ্জলি ভাষা শহীদদের প্রতি কংশ টিভির পরিবার ও গণমাধ্যম কর্মীদের শ্রদ্ধাঞ্জলী ফুটবল ফাইনাল টুর্নামেন্টে বিজয়ী মধুপুর একাদশ স্পোটিং ক্লাব ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ময়মনসিংহ জেলার শ্রেষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার ত্রিশালের মোস্তাফিজুর রহমান হালুয়াঘাটে পিকনিকের বাস উল্টে আহত-৮ ময়মনসিংহের ত্রিশালে করোনা টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন

কোন সময় সন্তান নেওয়া ভালো

প্রকাশিতঃ ৭:২৭ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৭, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩৯৮ বার

নিউজ ডেস্ক: সকল ব্যক্তির কাছে নিজের সন্তান প্রিয় হলেও প্রথম সন্তান একটু বেশি প্রিয়। সে কারণে বিয়ের পর অধিকাংশ দম্পতিকে অনেকবার শুনতে হয় বাচ্চা নেবেন কবে। কিন্তু, সন্তান নেওয়ার সিদ্ধান্তটি এখন একটি বড় চ্যালেঞ্জ।

কেননা নিজেকে প্রতিষ্ঠা করে, সকল প্রকার অর্থনৈতিক সমস্যা সমাধানসহ দাম্পত্য জীবন গুছিয়ে জীবনের বহু হিসাব-নিকাশ করে সিধান্ত নিতে চায় আধুনিক নারীরা সন্তান।

সন্তান নেওয়ার কোনো আদর্শ সময় আছে কি সেটাও জানা জরুরী বর্তমান সময়ের নারীদের ।

আগে মনে করা হতো, ২০ বছরের আগে প্রথম সন্তান নেওয়া ভালো। তবে আধুনিক চিকিৎসকেরা মনে করেন, প্রথম সন্তানটি ২৫ বছর বয়সের আগে নিলে ভালো। সমীক্ষা বলে, ৩০ বছর পেরিয়ে গেলে প্রজননক্ষমতা প্রায় ৫০ শতাংশ কমে যায়।

৩৫ বছরে পর ডিম্বাণুর সংখ্যা কমে যায় আরও বেশি। এ ছাড়া এ বয়সে গর্ভধারণের পরে গর্ভকালীন ডায়াবেটিস, উচ্চরক্তচাপ, প্রসব-পূর্ব রক্তক্ষরণ ও প্রসবকালীন জটিলতা বেড়ে যায়। সবচেয়ে আশঙ্কার বিষয় হলো, জন্মগত ত্রুটিযুক্ত এবং ডাউন সিনড্রোম সন্তান জন্মদানের হার অনেক বেশি হয়, যদি মায়ের বয়স বেশি থাকে। এসব ক্ষেত্রে স্বাভাবিক প্রসবে হার কমে যায় এবং অস্ত্রোপচারে জন্ম বেশি হয়।

অনেকে প্রথম সন্তানটি নেওয়ার পর ক্যারিয়ার গুছিয়ে নিতে একটু দীর্ঘ বিরতি নেন। পরে মা হওয়ার জন্য কয়েক মাস চেষ্টার পরেই অনেকে অধৈর্য হয়ে যায়। সে ক্ষেত্রে ন্যূনতম ছয় মাস অপেক্ষা করতে হবে। তারপর প্রয়োজনে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে।

তবে সুস্থ শিশু জন্মদানের ক্ষেত্রে স্বামী-স্ত্রী দুজনের বয়সের দিকেই নজর রাখা উচিত। নারী-পুরুষ উভয়ের বয়স ৩০-৩৫ বছরের মধ্যে প্রথম সন্তান নেওয়া ভালো। একটু বেশি বয়সে সন্তান নিলে গর্ভধারণগুলোতে জটিলতা দেখা দেয়। সে করণে প্রথম সন্তানের নেওয়ার ব্যাপারে বয়সের বিষয়ে সচেতন হওয়া জরুরী।

Shares