আজ শুক্রবার , ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে সাবেক এমপি শহীদুল আলম তালুকদারের মতবিনিময় সভা হালুয়াঘাটে নবান্নকে ঘিরে পিঠা পুলির উৎসব! কোভিড-১৯ প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে মেয়রের আহব্বান বাউফলে তারেক রহমানের জন্মবার্ষিকী পালিত বাউফলে প্রায়তঃ শিক্ষকের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া-মোনাজাত আত্মহত্যার পরও সূদের টাকার জন্য ফোন! ত্রিশালে সড়ক দূরঘটনায় একজন নিহত চার জন আহত ত্রিশালে যুবলীগের ৪৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত আমতলীতে মাদ্রাসা মাঠে ধান চাষ বরগুনায় ১০ দোকান পুড়ে ছাই হৃদয় হত্যাকাণ্ডে জড়িত প্রত্যেকের ফাঁসি চান পরিবার আইপিএলে ,নিঃস্ব হচ্ছে অনেক পরিবার ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের উদ্যোগে শাহ্ আহসান হাবীব বাবুর জন্ম দিন পালন বরগুনায় সেরা সম্পাদককে সংবর্ধনা বরগুনা বেতাগীর আলোচিত বজলু হত্যা মামলার ২ নম্বর আসামি আটক

বাজপেয়ীর শেষকৃত্যে যোগ দিতে এসেছেন প্রতিবেশি দেশের প্রতিনিধিরা

প্রকাশিতঃ ৫:৪৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৭, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৯৭ বার

অনলাইন ডেস্কঃ ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীকে শুক্রবার সন্ধ্যায় রাষ্ট্রীয় মর্যদায় শেষ বিদায় জানানো হবে। বাজপেয়ীর শেষকৃত্যে উপস্থিত থাকবেন দেশ বিদেশের প্রতিনিধিরা। উপস্থিত থাকবেন প্রতিবেশি দেশের প্রতিনিধিরা। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, পাকিস্তানের আইন ও তথ্য মন্ত্রী , শ্রীলঙ্কা ও নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে। শেষকৃত্যে যোগ দিতে ইতিমধ্যেই দিল্লি এসেছেন ভুটানের রাজা জিগমে খেসর ওয়াংচুকের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধিদল। বাজপেয়ীর মৃত্যুতে ভারত জুড়ে পালিত হচ্ছে সাতদিনের রাষ্ট্রীয় শোক।

এই সাতদিন সরকারি সব অফিসে আদালতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। বন্ধ থাকবে সব সরকারি অনুষ্ঠানও। গত বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় ভারতকে রতœহীন করে চলে গিযেছেন কবি ও রাজনীতিবিদ অটলবিহারী বাজপেয়ী। তাঁর অসাধারণ বাগ্মিতা অনেকসময় পুষ্ট হয়েছে কবিতার পংক্তিতে। মানব কল্যাণের শাশ্বত দর্শনকে বিভিন্ন আঙ্গিকে তিনি তাঁর কবিতায় তুলে ধরেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে রাজধর্ম পালনে তিনি ছিলেন অবিচল। বৃহস্পতিবার রাতে তাঁর মরদেহ রাখা ছিল কৃষ্ণ মেনন মাগের বাসভবনে। শুক্রবার তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে দীনদয়াল উপাধ্যায় মার্গে বিজেপির নতুন সদর দফতরে। বিকেল পাঁচটায় সেনাবাহিনীর উপস্থিতিতে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে স্মৃতিস্থলে। সেখানে উপস্থিত থাকবেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা ছাড়া বিজেপির শীর্ষ নেতৃত এবং সব রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা। সেনাবাহিনীর তিন প্রধানের উপস্থিতিতে ২১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে অটল বিহারীকে শেষ বিদায় জানানো হবে। রাজঘাটের কাছে তাঁর সমাধিস্থলে একটি স্মৃতিস্মারক তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছে ভারত সরকার। শেষযাত্রায় তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে হাজির হয়েছিলেন বিজেপি কর্মী সমর্থকদের পাশাপাশি ঢল নেমেছে অগণিত সাধারণ মানুষেরও। ভারতের সব রাজনৈতিক দলের নেতারা বাজপেয়ীর বাসভবনে গিয়ে গত বৃহষ্পতিবারই শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। সকলে স্মৃতিচারণায় বাজপেয়ীকে একজন অসাম্প্রদায়িক ও ধর্মনিরপেক্ষ মানুষ হিসেবে অভিহিত করেছেন।

Shares