আজ রবিবার , ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাচনে মোশারফ, ফরিদ, আশুরা বিজয়ী গরীবের আশার বাতিঘর হাজী মোশারফ হালুয়াঘাটে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি পুঁততে গিয়ে মৃত্যু-১, আহত-১ জাতীয় ভাবে”স্বপ্নজয়ী মা” নির্বাচিত হলেন জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জের অবিরণ নেছা ৬১০৮ ভোটের ব্যবধানে হামিদ বিজয়ী। শেখ রাসেল ও মনোয়ারা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হালুয়াঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনঃ প্রবীণে প্রবীণে লড়াই এম্বুলেন্সে করে মাদক পাচারকালে ২৪০ বোতল ভারতীয় মদসহ একজন আটক এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার

যুবলীগ নেতার গ্রেপ্তার দাবিতে সড়কে এমপি,সড়ক আবরোধ

প্রকাশিতঃ ৫:০৬ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৭, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৫৩৭ বার

নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীর জলঢাকায় ১৫ আগস্ট শোক দিবসের আলোচনা অনুষ্ঠান চলাকালে যুবলীগ নেতা কতৃক অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার প্রতিবাদ এবং লাঞ্চনাকারীকে গ্রেফতারের দাবিতে সড়কে অবস্থান নেন সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা।

এ সময় যুবলীগ নেতা বাহাদুরকে গ্রেপ্তারের দাবিতে বুধবার (১৫ আগস্ট) রাতে ৪ ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করেন এমপি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার সমর্থকরা।

১৫ই আগস্ট রাত ১০ টার দিকে জলঢাকা শহরের জিরো পয়েন্টে উপজেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা সভায় স্থানীয় সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফা বক্তব্য রাখার সময় জলঢাকা উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি আবদুল ওয়াহেদ বাহাদুর ও তার কয়েক সঙ্গী ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা বলে সংসদ সদস্যকে গালিগালাজ করে শোক দিবসের আলোচনা সভায় বক্তব্য প্রদান থেকে বিরত থাকতে বলেন।

এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফার সমর্থকরা জিরো পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে বাহাদুরকে গ্রেপ্তারের দাবি জানাতে থাকেন। এ অবস্থার পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয় জলঢাকা সদরে।

রাত ১২ টার দিকে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবীর নানক সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফার সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলার পর তিনি ও তার সমর্থকরা জিরো পয়েন্ট এলাকা ছেড়ে বাড়ি ফিরেন। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে অনির্বাণ বিদ্যাতিথী উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যানারে যুবলীগ নেতা বাহাদুরকে গ্রেপ্তারের দাবিতে শহরের জিরো পয়েন্টে মানববন্ধন করা হয়। সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফা স্থানীয় সাংবাদিকদের অভিযোগ করে বলেন, তাকে লাঞ্ছিত করার অপরাধে যুবলীগ নেতা বাহাদুরকে গ্রেপ্তার করতে হবে। এ বিষয় অভিযুক্ত আবদুল ওয়াহেদ বাহাদুর বলেন, ‘আমার নেতাকর্মীরা উত্তেজিত হয়ে স্লোগান দিতে থাকলে আমি গিয়ে তাদেরকে শান্ত করি। জলঢাকা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

Shares