আজ সোমবার , ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাচনে মোশারফ, ফরিদ, আশুরা বিজয়ী গরীবের আশার বাতিঘর হাজী মোশারফ হালুয়াঘাটে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি পুঁততে গিয়ে মৃত্যু-১, আহত-১ জাতীয় ভাবে”স্বপ্নজয়ী মা” নির্বাচিত হলেন জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জের অবিরণ নেছা ৬১০৮ ভোটের ব্যবধানে হামিদ বিজয়ী। শেখ রাসেল ও মনোয়ারা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হালুয়াঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনঃ প্রবীণে প্রবীণে লড়াই এম্বুলেন্সে করে মাদক পাচারকালে ২৪০ বোতল ভারতীয় মদসহ একজন আটক এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার

তার সমস্যা কোথায়?

প্রকাশিতঃ ৯:০৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৫, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৫০৯ বার

নিউজ ডেস্ক: ফেসবুক লাইভে অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের মাধ্যমে অল্প সময়েই আলোচনায় উঠে এসেছেন সেফাত উল্লাহ ওরফে সেফুদা। তার নোংরা আক্রমণ থেকে রেহাই পাননি ক্রিকেটার থেকে শুরু করে রাজনীতিবিদরাও। তার আলোচিত বক্তব্য নিয়ে সামাচিক যোগাযোগ মাধ্যমে ট্রল হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এতে সামাজিক মাধ্যমে এক ধরনের অস্থিরতা তৈরি হয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

সেফাত উল্লাহ সেফুদার আসলে সমস্যাটা কি? কেন এমন করেন? জানা যায়, ঝামেলায় জড়িয়ে দীর্ঘ সময় জেল খেটেছেন সেফাত উল্লাহ। পরিবারের সদস্যদের থেকেও তিনি বিচ্ছিন্ন। অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় একাকী জীবনযাপন করছেন তিনি। সেখান থেকেই তার করা লাইভগুলো একের পর এক বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।

তার স্ত্রী দাবি করেছেন, সেফাত উল্লাহ আসলে সিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত।

তিনি যে মাদকাসক্ত তা স্পষ্ট। তিনি প্রায়ই লাইভে এসে মদের গুণাগুণ বর্ণনা করেন এবং মদ পান করেন। তার ‘মদ খাবি মানুষ হবি’ সংলাপটাও এখন ইন্টারনেটে ভাইরাল।

ভিয়েনা বাঙালি কমিউনিটির পরিচিত মুখ ও প্রবাসী সাংবাদিক ফিরোজ আহমেদ জানান, ভিয়েনা বাংলাদেশ কমিউনিটির এক পারিবারিক ঝগড়ার কারণে কোর্টের রায়ে দীর্ঘদিন ভিয়েনায় জেল খাটেন সিফাত উল্লাহ। মুক্ত হবার পর অস্ট্রিয়ার আইন অনুযায়ী তার লিগ্যাল হবার সব রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। স্ত্রী সন্তানদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন তিনি। মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন। পরবর্তীতে মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েন সিফাত উল্লাহ।

বাংলাদেশ পুলিশের মহা পরিদর্শক জাবেদ পাটোয়ারি জানান, যারা বাইরে থেকে দেশের সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করে নিজ দেশের সম্মান নষ্ট করছেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Shares