আজ সোমবার , ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

রাহেলা হযরত মডেল স্কুলে প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধাঞ্জলি ভাষা শহীদদের প্রতি কংশ টিভির পরিবার ও গণমাধ্যম কর্মীদের শ্রদ্ধাঞ্জলী ফুটবল ফাইনাল টুর্নামেন্টে বিজয়ী মধুপুর একাদশ স্পোটিং ক্লাব ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ময়মনসিংহ জেলার শ্রেষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার ত্রিশালের মোস্তাফিজুর রহমান হালুয়াঘাটে পিকনিকের বাস উল্টে আহত-৮ ময়মনসিংহের ত্রিশালে করোনা টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করোনাঃ হালুয়াঘাটে ভ্যাকসিন প্রদান শুরু, ১৩৬ জনের রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন হালুয়াঘাটে করোনার প্রথম টিকা নিলেন ইউ.এন.ও রেজাউল করিম বাউফলে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবিতে-পটুয়াখালীতে বিএমজিটিএ এর আলোচনা সভা বাউফলে শীতবস্ত্র পেল শীতার্তরা ফুলপুরে পালকি কমিউনিটি সেন্টার ও রেস্টুরেন্টের উদ্ভোদন করোনা ভ্যাকসিন বিতরণে হালুয়াঘাট উপজেলা প্রশাসনের আলোচনা সভা

ময়মনসিংহে যুবলীগনেতা নেতা হত্যা! ধর্মমন্ত্রীর বাড়ি ঘেড়াওয়ের ঘোষনা!

প্রকাশিতঃ ১০:০৩ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৫, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৪২০ বার

অনলাইন ডেস্কঃ ময়মনসিংহ নগরীর আকুয়া এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মহানগর যুবলীগ সদস্য সাজ্জাদ আলম শেখ আজাদ ওরফে আজাদ শেখ হত্যার ঘটনায় ৫ দিন অতিবাহিত হলেও মামলা নেয়নি কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ। এরই প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও মানব্বন্ধন করেছে নিহত আজাদের স্বজনরা। সেই সাথে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে মামলা রজু করা না হলে নিজেরাই হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন ও ধর্মমন্ত্রীর বাড়ি ঘেড়াও করবে বলে ঘোষনা দিয়েছেন আজাদের পরিবার।

রবিবার (৫ আগস্ট) দুপুরের নগরীর গাঙ্গিনাপাড় মোড়ের প্রধান সড়ক অবরোধ করে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও সনমাবেশে এই ঘোষনা দেয়া হয়েছে।

এসময় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আজাদের স্ত্রী দিলরুবা আক্তার, বড় ভাই সালাহ উদ্দিন শেখ ও তার কর্মী শাব্বির শেখ প্রমুখ। মানববন্ধন ও সমাবেশে আজাদের স্বজনরা ছাড়াও এলাকাবাসী ও যুবলীগের কর্মীরা অংশ নেন।

আজাদের সস্ত্রী দিলরুবা আক্তার বলেন, থানায় মামলা দিয়েছি। ওই এজাহারে ধর্মমন্ত্রীর ছেলে মোহিত উর রহমান শান্তকে প্রধান আসামী করে ২৫ জনের নাম উল্লেখ্য রয়েছে। এখনো পুলিশ মামলা নেয়নি। মামলা না নিয়ে আমাদের উল্টাপাল্টা কথা বলছেন। এসময় তিনি অভিযোগ করে বলেন, মন্ত্রীর ছেলে বলে কি পুলিশ মামলা নিবেনা। আমার স্বামীওতো যুবলীগ করতো। সে মহানগর আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিল। আমি কি আমার স্বামী হত্যার বিচার পাবোনা?

এ বিষয়ে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি (ইনটেলিজ্যান্স ও কমিউনিটি পুলিশিং) মুশফিকুর রহমান বলেন, আমরা একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তবে অভিযোগটি তদন্ত করা হচ্ছে।

অন্যদিকে মামার বিষয়টি জানতে কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলামকে ফোন করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেন নাই।

এদিকে আজাদ হত্যার পর থেকেই ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমানের ছেলে মহানগর আ.লীগের সাধারন সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্তকে দায়ী করে আসছে আজাদের স্ত্রী ও স্বজনরা। আজকেও বিক্ষোভ মিছিল ও মানব্বন্ধনে ধর্মমন্ত্রীর ছেলের বিচার চেয়ে শ্লোগান দেয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে ধর্মমন্ত্রী এবং তার ছেলেকে ফোন করা হলেও কেউ ফোন রিসিভ করেন নি। পরে ধর্মমন্ত্রীর ব্যক্তিগত তথ্যকর্মকর্তা বুলবুল আহমদ কে ফোন করা হলে তিনি বলেন আমি এয়ারপোর্টে আছি দেশের বাইরে যাবো। আপনি মন্ত্রী স্যারের পিএস শফিকুর রহমান এবং এপিএস আবু সাঈদের সাথে কথা বলেন। তারা মন্ত্রী স্যারের সাথে কথা বলিয়ে দিবেন । কিন্ত তাদের কেউ ফোন রিসিভ করেন নাই। তাই ধর্মমন্ত্রী এবং তার ছেলের সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি

উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই দুপুরে দলীয় বিরোধের জেরধরে প্রকাশ্যে মহানগর যুবলীগের সদস্য আজাদ শেখকে গুলি,  দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে একই এলাকার যুবলীগের কর্মীরা। আজাদ এক সময় মোহিত উর রহমান শান্তর গ্রুপ করতেন। পরে বনিবনা না হওয়ায় জেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক এড মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল ও পৌর মেয়র ইকরামুল হক টিটুর গ্রুপে যোগ দেন বলে জানা গেছে।

Shares