আজ মঙ্গলবার , ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ভালুকায় সাংবাদিক নিগ্রহের বিচার দাবিতে মানববন্ধন রিফাত হত্যা রায় ৩০ সেপ্টেম্বর ! মিন্নির সাজা হবে কি? টাংগাইল সদরের (বুরো এনজিও) কর্মকর্তা খুন। মতলব উত্তরে আধুনিক প্রযুক্তিতে বীজ উৎপাদন সংরক্ষনে মাঠ দিবস অনুষ্টিত টাংগাইলে জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান লিটন কে কুপিয়ে হত্যা চেস্টা। টাংগাইলে চতুর্থ শ্রেণির (১০) এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা। রাঙ্গাবালীতে বিয়ের প্রতিশ্রæতিতে প্রতারণার অভিযোগ, চারজনের বিরুদ্ধে মামলা হালুয়াঘাটে বিজিবি’র পিটুনিতে আহত-১ প্রশ্নবিদ্ধ টি.এইচ.ও ডা. সোহেলী শারমিন! কোটি টাকার দূর্ণীতির নেপথ্যে–? হালুয়াঘাটে নারী সোর্স সুমিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগ বাউফলে এক ব্যক্তির চোখ উৎপাটন হালুয়াঘাটে সুমী’র অপকর্ম ফাঁস! প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮২৭ রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের স্বঘোষিত সভাপতির হুমকিতে ৫ সাংবাদিক এলাকাছাড়া করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু

একজন শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান ও শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক কাজী নজরুল ইসলাম

প্রকাশিতঃ ৪:৪০ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৫, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৭৬ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন বরুয়াজানী হাসান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একেএম কাজী নজরুল ইসলাম। পাশাপাশি শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক হিসেবেও ইতিপূর্বে পুরস্কৃত হয়েছেন বলে জানা গেছে। সুত্রে জানা যায়, প্রধান শিক্ষক কাজী নজরুল ইসলাম গত ২৭ জুন মঙ্গলবার জাতীয় শিক্ষাসপ্তাহ ২০১৮ উপলক্ষে নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরফদার সোহেল রহমান শিক্ষাসপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে নালিতাবাড়ী উপজেলার শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান হিসেবে কাজী নজরুল ইসলামের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। জানা যায়, এর আগে ২০১৭ সালেও উক্ত বরুয়াজানী উচ্চ বিদ্যালয় উপজেলায় শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে পুরস্কৃত হন। গতকাল এক সাক্ষাৎকারে উক্ত প্রধান শিক্ষকের সফলতার নেপথ্যে জানতে চাইলে তিনি একজন আদর্শিক ও দায়িত্বশীল প্রধান শিক্ষকের ভূমিকার কথা উল্লেখ করেন। প্রধান শিক্ষক হিসেবে এ কে এম কাজী নজরুল ইসলাম গত ২০১১ সালের ৫ মে তারিখে দায়িত্ব বুঝে নেন। তিনি জানান, এরপর থেকেই লেগেছে বিদ্যালয়টিতে উন্নয়নের ছোঁয়া। প্রধান শিক্ষক হিসেবেও রয়েছে আলাদা কিছু বৈশিষ্ট্য। তারসাথে কথা বলে জানা যায়, সকাল ৯টায় প্রতিদিন বিদ্যালয়ে আসেন। নিজেই বিদ্যালয়ের সকল কিছু তদারকি করে থাকেন। ভিজিট করেন নিজেই। অনেক সময় নিজেই ময়লা পরীস্কার করে থাকেন। নিয়মিত ক্লাস মনিটরিং করা, বাগান করা, শিক্ষার্থীদের জন্যে খেলাধুলার ব্যবস্থা করা, প্রতিটি জাতীয় প্রোগ্রামে শিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহণের ব্যবস্থা করাসহ সকল দায়িত্বগুলো পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পালন করে থাকেন। তিনি জানান, জাতীয়করনের জন্যে ৫ টি প্রতিষ্ঠানের ভিজিট তালিকায় বরুয়াজানী হাসান উচ্চ বিদ্যালয় শীর্ষে রয়েছে। বিদ্যালয়টি ১৯৬৭ সালে স্থাপিত। ভাল পাঠদান, অতুলনীয় ফলাফল, বিদ্যালয়ের ভৌত অবকাঠামো, দক্ষ শিক্ষক মন্ডলীসহ সব মিলিয়ে নজর কেঁড়েছে সকলের। শহরের বাহির এলাকায় একমাত্র সুনাম কুঁড়িয়েছে যা। ৮ শত শিক্ষার্থী। বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শাখা নিয়ে ত্রিধারায় চলে শিক্ষা কার্যক্রম। গত জে এস সিতে ৯৪.৭৭%, এসএসসিতে ৯৭.৮% ফলাফল অর্জন করে। এ+ ৯ জন, ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি ৩ জন। অন্যান্য বছরের ফলাফলও ভালো। প্রধান শিক্ষক জানান, জাতীয়করনের জন্যে একমাত্র দাবীদার এই বিদ্যালয়টির।###

Shares