আজ শনিবার , ২৮শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ওজনে ধান বেশী নেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ নালিতাবাড়ীতে মাংস বিক্রেতাদের জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত নালিতাবাড়ীতে অগ্নিকাণ্ডে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বসতঘর পুড়ে ক্ষয়ক্ষতি “মুক্তিযুদ্ধে হালুয়াঘাট” গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত প্রকল্পের পাওনা টাকা দাবী: ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে হামলার অভিযোগ “মুক্তিযুদ্ধে হালুয়াঘাট” গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ীর মাদক ব‍্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব হালুয়াঘাটে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত শেরপুরে স্বামী পরিত্যক্তা তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: গ্রেফতার এক নালিতাবাড়ীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন নালিতাবাড়ীতে র‍্যাবের হাতে বিদেশী মদসহ যূবক গ্রেফতার তিনানী বাজার থেকে সয়াবিন তেল জব্ধ,লাখ টাকা জরিমানা নালিতাবাড়ী প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের অভিযোগে একজন আটক নালিতাবাড়ীতে গতি রোধ করে গরু ব্যবসায়ীর উপর বিজিবি’র গুলি, আহত তিন

পাচার হওয়ার আগে পশ্চিমবঙ্গে উদ্ধার তিন বাংলাদেশি নারী

প্রকাশিতঃ ১১:০৫ অপরাহ্ণ | জুলাই ০৩, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৯৩ বার

সীমান্তবার্তা ডেস্ক :পাচার হওয়ার আগেই পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের তৎপরতায় উদ্ধার করা হয়েছে বাংলাদেশি ৩ নারী। গতকাল সোমবার পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগণা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। বাংলাদেশের এই তিন নারীকে কাজ পাইয়ে দেবার কথা বলে সীমান্ত পার করে ভারতের এক দালালের হাতে তুলে দেয়া হয়। তবে নারী তিনজনকে নিয়ে উত্তর ২৪ পরগণার গাইঘাটায় আসার পর সেই দালাল হঠাৎ উধাও হয়ে যায়। এরপরেই সেই তিন নারীকে ইতস্তত ঘুরতে দেখে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে তারা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ তৎপরতার সঙ্গে তাদের উদ্ধার করে।

উদ্ধারকৃত তিন নারীর হলেন  নার্গিস কাজী (২০), সোনিয়া খাতুন (২১) এবং রেশমা বেগম (২৭)। তারা জানিয়েছেন, বাংলাদেশের এক ব্যক্তি ভারতে কাজের প্রতিশ্রুতি দিয়ে চোরাইপথে তাদের ভারতে নিয়ে যান। পশ্চিমবঙ্গে নেয়ার পর ওই ব্যক্তি অন্য এক ব্যক্তির হাতে তাদের তুলে দেন। এরপর এই এলাকায় আসার পর ওই ব্যক্তি হঠাৎই উধাও হয়ে যান। গতকালই তিন জনকে  আদালতে তোলা হলে তাদের হোমে পাঠানো হয়। বাংলাদেশ থেকে দরিদ্র পরিবারের নারীদের কাজের প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে নিয়ে যাবার জন্য একটি চক্র সক্রিয় রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। পুলিশ আরো জানিয়েছে, এই সব নারীদের ভারতের বিভিন্ন জায়গায় নিষিদ্ধ পল্লীতে বিক্রি করে দেয়া হয়। একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার মতে, প্রতিবছর বাংলাদেশ থেকে কয়েক হাজার কিশোরী ও নারী পাচার হয়ে ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্রি হয়ে যাচ্ছে।

Shares